#এসে_মেশা_সাগরে:—- #সুজাতা_দাস:—-

#এসে_মেশা_সাগরে:—-
#সুজাতা_দাস:—-

ছুটে চলা পথে নির্নিমেষ অবকাশ,
পাহাড়ের বুক চিরে খরস্রোতা নদী,
যার দিক সে নিজেই ঠিক করে-
আপন খেয়ালে রাস্তা বাছে নিজের মতো সাগরে মেশার তাগিদে।

দিগন্ত বিস্তৃত নীল নীলিমায়,
অসংখ্য তারার ভিড়ে এক উজ্বল তারকা জ্বলতে থাকে সাঁঝ আকাশে-
বহু দূরের নক্ষত্র, ছোঁয়ার অবকাশ নেই শুধুই চেয়ে দেখা!
ইচ্ছেরা উড়তে চায় উপরে আরও উপরে,
যেখানে শুধুই ভালোলাগার ভিড়ে সহস্র নীহারিকার সংসার–
আছে সময়ের নিয়ম মেনে উদিত হওয়া আর অস্ত যাওয়া!
আছে অনন্ত শূন্যতায় নিজেদের মেলে ধরা।

নদীর মতো মনেরও হদিস পাওয়া মুশকিল, ভাসে স্রোতের দিকে নিজের অস্তিত্ব নিয়ে!
মিলতে চায় দুরন্ত সাগরের বুকে—
এই কারণেই ছুটে চলা অনন্তকাল, দিক পাল্টানোর আগে পর্যন্ত—
মনও ছুটে চলে অসীমের দিকে, মেলার অপেক্ষায় দিক্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে—-
কখনও ছুটে চলা বিফলে যায়, কখনও মেশে অনন্ত সাগরের মাঝে যা চেয়েছিল নিজে।

কিছু স্রোত হারিয়ে শীর্ণকায়া হয়ে বাঁচে,
শুধু মাত্র নামটুকু নিয়ে—-
তবুও ভাবে হয়তো আবার আসবে জোয়ার,
তন্বী তরুণীর মতো ছুটে চলবে সে!
মিশবে দুরন্ত সাগরের অনন্ত বুকে, হারাতে অবহেলে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *