বালুরঘাট হিলি রেলপ্রকল্পে বাজেটে বরাদ্দ হলো ২১০ কোটি টাকা, সঙ্গে একলাখি বালুরঘাট রেলপথ উন্নয়নে উদ্যোগ রেলের

০৩ ফেব্রুয়ারী, দিল্লিঃ গত ১লা ফেব্রুয়ারী কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন পেশ করলেন ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষে কেন্দ্রীয় বাজেট। যেখানে বালুরঘাট হিলি রেলপ্রকল্পে বাজেটে বরাদ্দ হলো ২১০ কোটি টাকা, সঙ্গে একলাখি বালুরঘাট রেলপথ উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দ করেছে রেল। ইতিমধ্যে বালুরঘাট হিলি নতুন রেল প্রকল্পের জমি অধিগ্রহণ করবার জন্য ২৯৮ কোটি টাকা রাজ্য সরকারের হাতে তুলে দেবার পাশাপাশি ৫০ কোটি টাকা ব্যায়ে ৫টি ব্রিজের অবশিষ্টাংশ নির্মানের কাজ শুরু করেছে রেল। এবার আরও ২১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করে বালুরঘাট হিলি রেলপথ দ্রুত নির্মানে গতি এনে চলতি বছরেই কাজ সম্পূর্ণ করতে চাইছে রেল। চলতি মাসেই জমি হাতে পেলে বালুরঘাট হিলি প্রকল্পে মাটির কাজ শুরু করতে চাইছে রেল।

পাশাপাশি বালুরঘাট হিলি রেলপথে দ্রুত আরো গতি আনতে মল্লিকপুর, মালঞ্চা ও দৌলতপুর স্টেশনকে ডি থেকে বি ক্যাটাগরিতে উন্নতি করবার দাবিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে রেল। পাশাপাশি বালুরঘাট স্টেশনে আরও একটি লাইন ও প্লাটফর্ম তৈরীর কাজ চলতি মাসেই শেষ করতে চাই রেল, যার জন্য সিগনাল উন্নতি করবার টেন্ডার ডেকেছে রেল।

সম্ভবত মার্চ মাসেই বালুরঘাট থেকে চালু হতে পারে বালুরঘাট গুয়াহাটি ও বালুরঘাট দিল্লি ট্রেন পরিষেবা। পাশাপাশি বালুরঘাট থেকে মালদা ও বালুরঘাট থেকে কাটিহার ইমু ট্রেন পরিষেবা চালু করার দাবিকেও বিবেচনা করছে রেল। সাংসদ সুকান্ত মজুমদার বলেন বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে রেল পরিষেবা উন্নত করতে তিনি যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার অনেকাংশেই সম্পূর্ণ করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন, খুব দ্রুত বালুরঘাট সহ জেলার অন্যান্য অঞ্চলের রেল পরিকাঠামো বৃদ্ধি পাবে। বালুরঘাট হিলি রেল প্রকল্পের কাজ রেল চাইলেও রাজ্য সরকারের জন্য ধিরে চলছে জমি অধিগ্রহণ। রেল চাই চলতি বছরের মধ্যে এই প্রকল্প বাস্তবে রূপ পাক, তাই এবারের রেল বাজেটে ২১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে রেল।

একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও রেলযাত্রী সমাজ কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায় আমাদের জানান দীর্ঘ আন্দোলনের পরে একে একে সাফল্যের মুখ দেখছে এই জেলার মানুষ। দীর্ঘ দিন অবহেলায় কেটেছে এই জেলার রেল প্রকল্পের কাজ, কেন্দ্রীয় সরকার বর্তমানে মুখ তুলে তাকিয়েছে তাই ধন্যবাদ জানাই প্রধানমন্ত্রী, রেলমন্ত্রী ও বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে।

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি বালুরঘাট থেকে সৌজন্যে টিভি ১৮

২১ শে জানুয়ারী সূচনা হলো বালুরঘাট হিলি নতুন রেল প্রকল্পের কাজ, ব্রীজের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজের সূচনা করেন সাংসদ ও ডিআরএম

২১শে জানুয়ারি, হিলিঃ ২১শে জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে সূচনা হলো বালুরঘাট হিলি রেল প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ। রবিবার সকালে হিলি যমুনা নদীর পাড়ে ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার। এদিন বালুরঘাট হিলি রেল প্রকল্পে গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি ব্রিজের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন তারা। অনুষ্ঠানে ডিআরএম ও সাংসদ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিএসএফের আধিকারিক থেকে রেলের উচ্চ পর্যায়ের আধিকারিকরা। প্রকল্পের শিলান্যাস করতে গিয়ে সাংসদ জানান বালুরঘাট হিলি জেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ রেল প্রকল্প অথচ জমি জটে দীর্ঘদিন আটকে ছিল এই প্রকল্পের কাজ। ইতিমধ্যে রেলের তরফ থেকে জমি অধিগ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসন কে 298 কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে এবং 50 কোটি টাকা এই প্রকল্পে যুক্ত ব্রীজের নির্মাণ কাজের জন্য বরাদ্দ হয়েছে।

যা ট্রেন্ডার প্রক্রিয়ার পরে আজ থেকে কাজের আনুষ্ঠানিক সূচনা হলো। কাটিহার ডিভিশনের ডি আর এম সুরেন্দ্র কুমার জানান, বালুরঘাট হিলি রেল প্রকল্প এটি গুরুত্বপূর্ণ রেল প্রকল্প, রেল এই প্রকল্পের কাজ গুরুত্ব সহকারে দেখছে, ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হলেই এই প্রকল্পের কাজ দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন হবে । সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের মধ্যেই বালুরঘাটে হিলি রেল প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত হবে। বালুরঘাট হিলি রেল প্রকল্প শুধুমাত্র যাত্রী পরিবহন নয় আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য ব্যবহার করা হবে পাশাপাশি রেলপথকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য দুই দেশের মধ্যে রেল যোগাযোগ গড়ে তোলা হবে।

২১শে জানুয়ারী বালুরঘাট হিলি নতুন রেল প্রকল্পের কাজের আনুষ্ঠানিক সূচনা করবেন সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম

১৯শে জানুয়ারী, বালুরঘাটঃ দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ২০১০ সালে তৎকালীন রেলমন্ত্রী আজকের বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষিত রেল প্রকল্প বালুরঘাট হিলি নতুন রেলপথের কাজের আনুষ্ঠানিক সূচনা হতে চলেছে রবিবার ২১শে জানুয়ারী। সূচনা করবেন বালুরঘাট লোকসভা সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার, থাকবেন রেলের নির্মান বিভাগের অন্যান্য আধিকারিকরা। ২১শে জানুয়ারী অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে হিলি সীমান্তের যমুনা নদীর তীরে হিলি বাংলাদেশের সীমান্ত স্টেশনে। ঘটনার খবর প্রকাশ পেতেই উল্লাসে মেতেছে হিলির বাসিন্দারা। সাংসদ সুকান্ত মজুমদার জানান জমি অধিগ্রহনের জন্য রাজ্য সরকারের হাতে ২৯৮ কোটি টাকা তুলে দেবার পাশাপাশি ৫০ কোটি টাকার প্রায় ১০ টি ব্রিজ নির্মানের জন্য টেন্ডার করেছে রেল। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরের শুরুতেই বালুরঘাট হিলির মধ্যে রেল পরিষেবা শুরু করতে চাই রেল পাশাপাশি হিলি সীমান্তের সঙ্গে বাংলাদেশ রেলপথকেও যুক্ত করতে চাই রেল, যারফলে এই রেলপথ দিয়ে দুই দেশের বানিজ্য আরও বেশি করে বাড়াতে উদ্যোগ গ্রহন করেছে রেল মন্ত্রক।

২৮শে এপ্রিল বালুরঘাট থেকে বন্ধ গৌড় লিঙ্ক, শুধু চলবে প্যাসেঞ্জার ট্রেন

৩০শে ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ১লা জানুয়ারী থেকে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতেই ২৮শে এপ্রিল, বালুরঘাট থেকে চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে ২৩১৫৪ গৌড় লিঙ্ক এক্সপ্রেস। তবে বালুরঘাট থেকে মালদা পর্যন্ত একি সময়ে শুধু চলবে প্যাসেঞ্জার ট্রেন। যার মাধ্যমে জেলা বাসি গৌড় এএক্সপ্রেসের সুবিধা নিতে পারবে। রাত্রি কালিন সময়ে বালুরঘাট থেকে গৌড় লিঙ্ক এক্সপ্রেস বন্ধ হয়ে গেলে, পাকুড় রামপুরহাট নলহাটি শান্তিনিকেতন বর্ধমান রুটের সরাসরি কোন ট্রেন পরিষেবা থাকলো না। তাই যেসকল যাত্রীরা রাতে এই রুট ব্যাবহার করতে চাই তাদের জন্য মালদা বালুরঘাট প্যাসেঞ্জার ট্রেন ব্যাবহার করে মালদা থেকে গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা গ্রহন করতে পারবার সুযোগ থাকছে। শুধু তাই নয় গৌড় ছাড়াও দার্জিলিং মেল কিম্বা পদাতিক এক্সপ্রেসের মতো অনেক ট্রেন মালদা টাউন স্টেশন থেকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার মানুষ গ্রহন করতে পারবে।

পাশাপাশি আগামী কাল থেকে ৩রা জানুয়ারী বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে পারবে। ৩১শে ডিসেম্বর থেকে ০৩১৮২ বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট ও ২রা জানুযারী শিয়ালদহ থেকে ১৩১৮৯ আপ ট্রেনের টিকিট বুকিং শুরু হলেও এই দিন থেকে ৩রা জানুয়ারীর টিকিট বুকিং বালুরঘাট থেকে বন্ধ ছিলো, একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী সমাজ কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায় কাটিয়ার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার চিঠি দিয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান আগামী কাল থেকে সব টিকিট বুকিং শুরু হয়ে যাবে।

১লা জানুয়ারী বছরের প্রথম দিন বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেসের শুভ যাত্রা

২৭শে ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ২০২৪ সালের প্রথম দিন চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস এমনটাই খবর রেল সুত্রে, জানালেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। এই দিন বেলা ১২টায় বালুরঘাট স্টেশন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এই ট্রেনের যাত্রার শুভ সূচনা করবেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব, এবং বালুরঘাট স্টেশনে উপস্তিত থাকবেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের জেনারেল ম্যানেজার চেতন কুমার শ্রীবাস্তব, উপস্থিত থাকবেন কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার। এমনটাই জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতি চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। এই বিষয়ে তিনি আমাদের জানান সাংসদ তাদের এইদিন ফোন মারফৎ জানিয়েছেন ডিসেম্বর মাসে ২৪ তারিখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সফর বাতিল হবার কারণে ঐদিন প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতে পারেনি, তাই আগামী বছরের প্রথম দিনেই বালুরঘাট স্টেশন থেকে চলতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস।

এইদিন ট্রেনটি বেলা ১২টায় ছেড়ে রাত্রি সাড়ে ১০টায় শিয়ালদহ স্টেশনে পৌছবে।

তিনি আরও জানান শিয়ালদহ থেকে ২রা জানুয়ারী থেকে প্রতিদিন রাত ১০টা ৩০মিনিটে ছেড়ে বালুরঘাটে সকাল ৮টা৩০মিনিটে প্রবেশ করবে আবার বালুরঘাট থেকে রাত ৭টায় ছেড়ে সকাল ৪টা২০মিনিটে শিয়ালদহে প্রবেশ করবে। পাশাপাশি গৌড়লিঙ্ক এক্সপ্রেস বালুরঘাট থেকে চলবে, যার ফলে জেলার বাসিন্দারা গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা নিতে পারবে। পাশাপাশি বালুরঘাট স্টেশনে একাধিক পরিকাঠামো উন্নয়নের  কাজ চলছে যার ফলে জেলাবাসি খুব শীঘ্রই বালুরঘাট থেকে পেতে পারবে বালুরঘাট চেন্নাই, বালুরঘাট নিউ দিল্লি ও বালুরঘাট গুয়াহাটি এক্সপ্রেস, যার ফলে জেলা বাসির দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে বলে জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। এছাড়াও বালুরঘাট একটা অত্যাধুনিক রেল স্টেশনে রূপ নেবে আগামী কিছুদিনের মধ্যে। আর এই সব উন্নয়ন পেয়ে খুসির হাওয়া জেলায়।

২০২৪ সালের প্রথম দিন বালুরঘাট থেকে শুভ সুচনা বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেসের

২৭শে ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ২০২৪ সালের প্রথম দিন চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস এমনটাই খবর রেল সুত্রে, জানালেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। এই দিন বালুরঘাট স্টেশন থেকে এই ট্রেনের যাত্রার শুভ সূচনা করবেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের জেনারেল ম্যানেজার চেতন কুমার শ্রীবাস্তব, উপস্থিত থাকবেন কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার। এমনটাই জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতি চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। এই বিষয়ে তিনি আমাদের জানান সাংসদ তাদের এইদিন ফোন মারফৎ জানিয়েছেন ডিসেম্বর মাসে ২৪ তারিখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সফর বাতিল হবার কারণে ঐদিন প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতে পারেনি, তাই আগামী বছরের প্রথম দিনেই বালুরঘাট স্টেশন থেকে চলতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস।

তিনি আরও জানান শিয়ালদহ থেকে প্রতিদিন রাত ১০টা ৩০মিনিটে ছেড়ে বালুরঘাটে সকাল ৮টা৩০মিনিটে প্রবেশ করবে আবার বালুরঘাট থেকে রাত ৭টায় ছেড়ে সকাল ৪টা২০মিনিটে শিয়ালদহে প্রবেশ করবে। পাশাপাশি গৌড়লিঙ্ক এক্সপ্রেস বালুরঘাট থেকে চলবে, যার ফলে জেলার বাসিন্দারা গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা নিতে পারবে। পাশাপাশি বালুরঘাট স্টেশনে একাধিক পরিকাঠামো উন্নয়নের  কাজ চলছে যার ফলে জেলাবাসি খুব শীঘ্রই বালুরঘাট থেকে পেতে পারবে বালুরঘাট চেন্নাই, বালুরঘাট নিউ দিল্লি ও বালুরঘাট গুয়াহাটি এক্সপ্রেস, যার ফলে জেলা বাসির দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে বলে জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। এছাড়াও বালুরঘাট একটা অত্যাধুনিক রেল স্টেশনে রূপ নেবে আগামী কিছুদিনের মধ্যে। আর এই সব উন্নয়ন পেয়ে খুসির হাওয়া জেলায়।

প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে ২৪শে ডিসেম্বর চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস

১৬ই ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ২৪শে ডিসেম্বর মাসেই চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, বিজ্ঞপ্তি জারি করলো রেলবোর্ড, এমনটাই জানালেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। তিনি ফোন মারফৎ এই কথা জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতি চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়কে। এই বিষয়ে তিনি আমাদের জানান সাংসদ তাদের এইদিন সন্ধ্যায় ফোন মারফৎ জানিয়েছেন ডিসেম্বর মাসে ২৪ তারিখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত দিয়ে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতে পারে।

তিনি আরও জানান সম্ভবত শিয়ালদহ থেকে প্রতিদিন রাত ১০টা ৩০মিনিটে ছেড়ে বালুরঘাটে সকাল ৮টা৩০মিনিটে প্রবেশ করবে আবার বালুরঘাট থেকে রাত ৭টায় ছেড়ে সকাল ৪টা২০মিনিটে শিয়ালদহে প্রবেশ করবে। পাশাপাশি গৌড়লিঙ্ক এক্সপ্রেস এর পরিবর্তে একি সময় বালুরঘাট মালদা প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলবে, যারফলে জেলার বাসিন্দারাও এই ট্রেনের মাধ্যমে মালদা থেকে গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা নিতে পারবে। এরফলে জেলাবাসির দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে বলে জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। ঘটনায় খুসির হাওয়া জেলায়।

২৮শে ডিসেম্বর বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেসের ট্রায়াল, ৮ থেকে ১০ই জানুয়ারি চালু

১১ই ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ২৮শে ডিসেম্বর বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেসের ট্রায়াল রানের দিন ঠিক করলো পূর্ব রেল এবং ৮ থেকে ১০ই জানুয়ারি চালু হবার সম্ভাবনা বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেসের, এমনটাই খবর রেল সুত্রে। জানাগেছে ২৮শে ডিসেম্বর ট্রেনটির ট্রায়াল রান করাবার পরে বালুরঘাট স্টেশনে যাবতীয় পরিকাঠামো খতিয়ে দেখবে রেল, পাশাপাশি জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই আনুষ্ঠানিক ভাবে চলাচল শুরু করবে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস।

ইতিমধ্যে বালুরঘাট স্টেশনে ট্রায়াল রানের যাবতীয় প্রস্তুতির কাজ শুরু করেছে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেল। বালুরঘাট স্টেশনের নির্মান কাজের পরিদর্শনে আসতে চলেছে রেল কর্মকর্তারা।

সম্ভবত বালুরঘাট স্টেশনে ১লা জানুয়ারী থেকে চালু হবার সম্ভাবনা পিট লাইনের কাজ

৯ই জানুয়ারী, বালুরঘাটঃ বালুরঘাট থেকে ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে চালু হবার সম্ভাবনা বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, গত শুক্রবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে নতুন এই ট্রেনের কথা জানাই রেল। এবার  সম্ভবত ১লা জানুয়ারী থেকে পিট লাইন চালু হবার সম্ভাবনার কথা শোনা গেলো রেলের তরফ থেকে। পিট লাইন চালু হলেই বালুরঘাট থেকে আরো তিনটি ট্রেন পরিষেবা চালু করতে পারে রেল। যার মধ্যে থাকতে পারে নিউদিল্লী বালুরঘাট এক্সপ্রেস, বালুরঘাট যসবন্তপুর এক্সপ্রেস ও বালুরঘাট গুয়াহাটি এক্সপ্রেস।

পিট লাইন চালু করার খবর প্রকাশ্যের সম্ভাবনা সামনে আসতেই এবার জেলা বাসি আশায় বুক বাধছে বালুরঘাট স্টেশন থেকে সারাদেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ট্রেন চালু হতে পারে। যা ইতিমধ্যে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের জেনারেল ম্যানেজার বালুরঘাট স্টেশনে এসে এইকথা জানিয়ে গেছেন।

একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী সমাজ কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিস্বর রায় আমাদের জানান পিট লাইন চালু হলেই নিউদিল্লী বালুরঘাট এক্সপ্রেস, বালুরঘাট যসবন্তপুর এক্সপ্রেস ও বালুরঘাট গুয়াহাটি এক্সপ্রেস চালু হবে শুধু নয়,  বালুরঘাট কাটিহার ও বালুরঘাট মালদা টাউনের মধ্যে ইমু ট্রেন পরিষেবা চালু হবে।

 

ডিসেম্বর মাসেই চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, বিজ্ঞপ্তি জারি রেলের

৮ই ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ডিসেম্বর মাসেই চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, বিজ্ঞপ্তি জারি করলো রেলবোর্ড, এমনটাই জানালেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। তিনি শুক্রবার দিল্লী থেকে ফোন মারফৎ এই কথা জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতি চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়কে। এই বিষয়ে তিনি আমাদের জানান সাংসদ তাদের এইদিন সন্ধ্যায় ফোন মারফৎ জানিয়েছেন চলতি মাসেই বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতে পারে। শুক্রবারে এই বিষয়ে রেলবোর্ড বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো।

তিনি আরও জানান সম্ভবত শিয়ালদহ থেকে প্রতিদিন রাত ১০টা ৩০মিনিটে ছেড়ে বালুরঘাটে সকাল ৮টা৩০মিনিটে প্রবেশ করবে আবার বালুরঘাট থেকে রাত ৭টায় ছেড়ে সকাল ৪টা২০মিনিটে শিয়ালদহে প্রবেশ করবে। পাশাপাশি গৌড়লিঙ্ক এক্সপ্রেস এর পরিবর্তে একি সময় বালুরঘাট মালদা প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলবে, যারফলে জেলার বাসিন্দারাও এই ট্রেনের মাধ্যমে মালদা থেকে গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা নিতে পারবে। এরফলে জেলাবাসির দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে বলে জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। ঘটনায় খুসির হাওয়া জেলায়।

ডিসেম্বর মাসেই চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, বিজ্ঞপ্তি জারি করতে চলেছে রেলবোর্ড

৭ই ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ ডিসেম্বর মাসেই চালু হতে চলেছে বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস, বিজ্ঞপ্তি জারি করতে চলেছে রেলবোর্ড, এমনটাই জানালেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। তিনি বৃহস্পতিবার দিল্লী থেকে ফোন মারফৎ এই কথা জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতি চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়কে। এই বিষয়ে তিনি আমাদের জানান সাংসদ তাদের এইদিন সন্ধ্যায় ফোন মারফৎ জানিয়েছেন চলতি মাসেই বালুরঘাট শিয়ালদহ এক্সপ্রেস চালু হতে পারে। শুক্রবারে এই বিষয়ে রেলবোর্ড বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে চলেছে বলে সাংসদ একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতিকে।

তিনি আরও জানান সম্ভবত শিয়ালদহ থেকে প্রতিদিন রাত ৯টা ১৫মিনিটে ছেড়ে বালুরঘাটে সকাল ৬টায় প্রবেশ করবে আবার বালুরঘাট থেকে রাত ৮টায় ছেড়ে সকাল ৫টায় শিয়ালদহে প্রবেশ করবে। পাশাপাশি গৌড়লিঙ্ক এক্সপ্রেস এর পরিবর্তে একি সময় বালুরঘাট মালদা প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলবে, যারফলে জেলার বাসিন্দারাও এই ট্রেনের মাধ্যমে মালদা থেকে গৌড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সুবিধা নিতে পারবে। এরফলে জেলাবাসির দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হবে বলে জানান একলাখি বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়। ঘটনায় খুসির হাওয়া জেলায়।

বালুরঘাট বিমানবন্দর চালুর দাবী দক্ষিণ দিনাজপুর বাসীর, প্রশ্ন উঠছে সুকান্ত – অশোক লাহিড়ীর ভূমিকায়

বালুরঘাট, ২০শে অক্টোবরঃ ৪০ মিনিটে কলকাতা কিম্বা দুই ঘন্টায় দিল্লি কিম্বা তিন ঘন্টায় বেঙ্গালুরু, বালুরঘাট থেকে এই অল্প সময়ে এই যাত্রার কথা ভাবতেই অবিশ্বাস লাগে। কিন্তু বাস্তবে এই ভ্রমন সম্বব যদি বালুরঘাট বিমানবন্দর চালু করতে উদ্যোগ গ্রহন করে সরকার। অথচ দক্ষিণ দিনাজপুর মালদা ও উত্তর দিনাজপুর জেলার একাংশের মানুষকে এই সফর করতে যেতে হয় বাগডোগরা বিমানবন্দরে বিমান ধরতে। বালুরঘাট থেকে যার দুরত্ব ৩০০ কিলোমিটার। অথচ প্রবল সম্ভাবনাময় বালুরঘাট বিমানবন্দর চালুর বিষয় নিয়ে কোন হেলদোল নেই কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারের। প্রায় ১২ কোটি টাকা রাজ্য সরকার খরচ করে বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে অন্যান্য পরিকাঠামো গড়ে তুলেও বিমান পরিষেবা চালু নিয়ে নিশ্চুপ কেন্দ্রীয় সরকার। বর্তমানে বালুরঘাট বিমানবন্দরের রানওয়ে প্রায় ১৫০০ মিটার হলেও ১৯০০ থেকে ২০০০ মিটার করবার জন্য প্রয়োজনিয় জমি রয়েছে বিমানবন্দরের হাতে। যদিও বর্তমানে এই বিমানবন্দর থেকে ATR 72 জাতীয় ৬০ থেকে ৭০ আসনের বিমান খুব সহজেই ওঠা নামা করতে পারবে বালুরঘাট বিমানবন্দর থেকে।

বালুরঘাট বিমানবন্দর চালু হলে এই জেলার যোগাযোগ ব্যাবস্থার উন্নতি ঘটবে শুধু তাই নয়, এই জেলার স্বাস্থ্য শিক্ষা সহ অর্থনৈতিক সামাজিক উন্নয়নে অভুতপূর্ব ভূমিকা রাখবে। পাশাপাশি বিমান পরিষেবা ভালো হলে হিলি হয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা যাত্রী সেবা উন্নতি ঘটবে বাড়বে যাত্রী সংখ্যাও। শুধু মাত্র বালুরঘাট থেকে বিমান কিম্বা ট্রেন পরিষেবা ভালো না হবার কারনে ক্রমেই কমছে যাত্রী সংখ্যা। ফলে অধিকাংশ যাত্রী শিলিগুড়ি কিম্বা কলকাতা হয়ে যেতে আগ্রহী হচ্ছে। এছাড়াও রাধিকাপুর যাত্রী সেবা খুলে গেলে হিলি শুধু মাত্র পরিকাঠামোর অভাবে পড়তে চলেছে বড়সরো চ্যালেঞ্জ এর মুখে।

তাই আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগেই এই জেলার বিমানবন্দর চালুর দাবী করছে এই জেলার মানুষরা। তবে বিমানবন্দর চালু আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বড় ইসু বলেই মনে করছে এলাকার মানুষরা। তাই সব রাজনৈতিক দল বিশেষ করে বিজেপির কাছে বিমানবন্দর চালু একটা বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ বর্তমানে বিজেপির দক্ষলেই রয়েছে বালুরঘাট লোকসভা ও বিধানসভার সিট। তাই বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ সুকান্ত মজুমদার থেকে বিধায়ক অশোক লাহিড়ী সবার কাছেই চ্যালেঞ্জ বিমানবন্দর চালু।

সিঙ্গাবাদ, রাধিকাপুর ও হলদিবাড়ি সীমান্ত দিয়ে যাত্রীসেবা শুরুর উদ্দ্যোগ রেলের, করা হলো টেন্ডার

কাটিহার, ১৯শে অক্টোবরঃ সিঙ্গাবাদ, রাধিকাপুর ও হলদিবাড়ি ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে যাত্রীসেবা শুরুর উদ্দ্যোগ নিলো উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেল। সেবা শুরু করতে যাত্রী সুবিধা ও সীমান্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থার জন্য রাস্তা, আলোর ব্যাবস্থা ও র‍্যাম্প নির্মানের জন্য টেন্ডার করলো উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের কাটিহার ডিভিশন। এতো দিন পযর্ন্ত শুধু মাত্র এই তিন রুট দিয়ে রেলের মাধ্যমে পণ্য রপ্তানিতেই ব্যাবহৃত হতো, যা দিয়ে এখন যাত্রী পরিষেবা চালুর ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা শুরু করতে শুরু করলো ভারতীয় রেল।

এতোদিন উত্তরবঙ্গে মহদিপুর, হিলি, ফুলবাড়ি ও চেংরাবান্ধা দিয়ে যাত্রী পরিষেবা চালু ছিলো, চলতি বছরের শুরুতে হলদিবাড়ি হয়ে এনজেপি ঢাকা ট্রেন পরিষেবা চালু হলেও সিঙ্গাবাদ, রাধিকাপুর ও হলদিবাড়ি দিয়ে দুই দেশের মধ্যে কোন যাত্রী সেবা ছিলো না। এবার এই রুট দিয়ে যাত্রী সেবা চালুর খবরে খুসির হাওয়া দুই দেশের মানুষের মধ্যে।

কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম সুরেন্দ্র কুমার জানান এই রুট দিয়ে যাত্রী সেবা চালুর করবার জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো উন্নয়ন করবার জন্য টেন্ডার করা হয়েছে।

বালুরঘাটে বর্ষায় বিলম্বিত এফসিআই ও ভারতীয় রেলের ৫০ হাজার মেট্রিকটনের খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষন প্রকল্পের কাজ

বালুরঘাটঃ গত দুই মাসের প্রবল বর্ষণে ব্যাপক ভাবে ব্যাহত দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বালুরঘাটের ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া ও ভারতীয় রেলের যৌথ উদ্যোগে নির্মীত ৫০ হাজার মেট্রিকটনের খাদ্যবস্তু সংরক্ষন প্রকল্পের কাজ। জমি অধিগ্রহনের পরে বালুরঘাট রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় এই নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে, যা আগামী ২০২৪ সালের মে মাসের ১০ তারিখের মধ্যে সম্পূর্ণ করবার লক্ষ্য মাত্রা ধার্য করা হলেও, এবারের বর্ষায় কাজ সেই ভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি নির্মাণকারী সংস্থার দ্বারা। সারা ভারতের একাধিক এলাকায় ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া ও ভারতীয় রেলের যৌথ উদ্যোগে এই ধরনের খাদ্যবস্তু সংরক্ষন ব্যাবস্থা গড়ে তুলছে ভারত সরকার, যার মধ্যে রয়েছে বালুরঘাটের এই ৫০ হাজার মেট্রিকটনের খাদ্যবস্তু সংরক্ষন প্রকল্পের নাম। কৃষি ভিত্তিক এই জেলার কৃ্ষি উন্নয়নের জন্য এই প্রকল্প হাতে নিয়েছে ভারত সরকার। যেখানে অত্যাধুনিক উন্নত সংরক্ষন ব্যাবস্থার মাধ্যমে ধান গম সংরক্ষন করা হবে। যার ফলে কৃ্ষকরা উৎপাদিত ফসল সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয় করতে পারবে। যা সংরক্ষন করে রেল ও সরক পথে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত বা বিদেশের রপ্তানি করবে সরকার। এই প্রকল্পের নির্মাণ কাজের বরাদ পেয়েছে লিপ এগ্রি লজিস্টিক বালুরঘাট প্রাইভেট লিমিটেড। যেখানে ৫০ হাজার মেট্রিক টনের অত্যাধুনিক আন্ডার গ্রাউন্ড সংরক্ষন ব্যাবস্থা সহ রাস্তা ও রেলপথের মাধ্যমে সংযুক্ত হবে। পাশাপাশি ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার প্রশাসনিক ভবন ও নির্মাণ করা হবে। এই সংস্থার প্রকল্প আধিকারিক সুভদিপ দাস জানিয়েছেন এই প্রকল্পের কাজ খুব দ্রুত সম্পূর্ণ করবার জন্য জোড় কদমে কাজ শুরু হয়েছে গত বছরের শেষ থেকে কিন্তু বর্ষার কারনে খনন কাজ ও নির্মাণ কাজে ব্যাপক ভাবে ব্যাহত হয়। দ্রুত কাজ শেষ করবার জন্য রাত দিন চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হলেও বৃষ্টির কারনে সেই কাজ নির্দিষ্ট সময়ে করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে যেভাবে কাজ চলছে তাতে নির্দিষ্ট সময়ের কিছু বেশি সময়ে তা সম্পূর্ণ করতে পারা যাবে।

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় যাত্রা শুরু করল আমারন ব্যাটারি

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় যাত্রা শুরু করল আমারন ব্যাটারি

বালুরঘাটঃ রাজা ব্যাটারি লিমিটেড (এআরবিএল) দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বাজারে ‘আমারন’ ব্যাটারির যাত্রা শুরু করল।শুক্রবার বালুরঘাটের একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে আমারন ব্যাটারির যাত্রা শুরুর ঘোষণা দেওয়া হয়। এদিন উপস্থিত ছিলেন আর এম- সাজিত কুমার এন,ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মনোজ কুমার শর্মা,অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার রাম চক্রবর্তী, সার্ভিস হেড অর্নব গাঙ্গুলি সহ আরো অনেকে। এদিন কোম্পানীর তরফে দাবি করা হয়,আমারন রক্ষণাবেক্ষণের প্রয়োজনীয়তা ছাড়া গ্রাহকদের দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারির নিশ্চয়তা দিচ্ছে। এছাড়া এটি রক্ষণাবেক্ষণের প্রয়োজনবিহীন, সম্পূর্ণ চার্জযুক্ত এবং ফ্যাক্টরিতেই সক্রিয় করা হয় এমন ব্যাটারি। এটি বেস্ট ইন ক্লাস (বিআইসি) ভেন্টস সম্পন্ন যা নিরাপদ ও দীর্ঘস্থায়ী।আমারন ব্যাটারির গুণগতমান শুধুমাত্র প্রতিশ্রুত নয় বরং নিশ্চিত। নতুন ধরনের প্রযুক্তির সাথে গ্রাহকরা এখন দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। গুন মানসম্পন্ন পণ্যে ক্রেতা, ডিলার ও ব্যবহারকারী সকলেই উপকৃত হবেন।

বালুরঘাট থেকে হাওড়া শতাব্দী এক্সপ্রেস চালুর দাবি বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের কাছে

২৭শে ডিসেম্বর, বালুরঘাটঃ হাওড়া এনজেপি বন্দে ভারত ট্রেন ৩০শে ডিসেম্বর থেকে চালুর ঘোষণার পরে বালুরঘাট থেকে হাওড়া শতাব্দী এক্সপ্রেস চালুর দাবি জানালো একলাখী বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ সমিতি। এই মর্মে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের কাছে দাবি পত্র পেশ করলেন সংস্থার চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায়, পাশাপাশি একি দাবিতে সরব হলো জয়েন্ট মুভমেন্ট কমিটি ফর টুরা হিলি করিডর কমিটির সদস্যরা। এলাকার বাসিন্দা থেকে বাংলাদেশ থেকে আগত মানুষদের কথা চিন্তা করে উভয় সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই এলাকা দীর্ঘ দিন থেকে বঞ্চিত, সেই ভাবে দ্রুতগতি কোন যোগাযোগ ব্যাবস্থা গড়ে ওঠেনি। তাই হাওড়া এনজেপি বন্দে ভারত চালু হলে হাওড়া এনজেপি শতাব্দী এক্সপ্রেসকে বালুরঘাট হাওড়া রুটে চালানোর দাবি করছে একলাখী বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ সমিতি ও জয়েন্ট মুভমেন্ট কমিটি ফর টুরা হিলি করিডর কমিটির সদস্যরা।

ইতিমধ্যে এই দাবি পত্র পেশ করা হয়েছে এনএফ রেলওয়ে ও বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের কাছে। একলাখী বালুরঘাট রেল উন্নয়ন ও সমাজ কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান স্মৃতিশ্বর রায় আমাদের জানান গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রতিশ্রুতি ছিলো বালুরঘাট হাওড়া রুটে শতাব্দী এক্সপ্রেস চালু করা হবে, তাই বর্তমানে হাওড়া এনজেপি রুটে বন্দেভারত এক্সপ্রেস চালু হতে চলেছে ৩০শে ডিসেম্বর, তাই এবার সেই রুটে চলাচলকারী শতাব্দী এক্সপ্রেস বালুরঘাট রুটে পরিবর্তন করা হোক।

মার্চ থেকে বালুরঘাট বিমানবন্দর থেকে উড়ান চালু করতে চলেছে ভদ্রা এয়ারওয়েজ

২৩শে ডিসেম্বর, দিল্লীঃ সবকিছু ঠিক থাকলে মার্চ থেকে সম্ভবত বালুরঘাট বিমানবন্দর থেকে উড়ান চালু করতে চলেছে ভদ্রা এয়ারওয়েজ। ইতিমধ্যে ভদ্রা এয়ারওয়েজের সঙ্গে AAI এর যাবতীয় চুক্তি সম্পূর্ন হয়ে গেছে বলে সুত্রের খবর। প্রাথমিক ভাবে বালুরঘাট কোলকাতার মধ্যে চলবে  ভদ্রা এয়ারওয়েজের ATR 72 বিমান। যেখানে ৫০ থেকে ৬০ সিটের যাত্রী পরিষেবা পাওয়া যাবে বলে জানাযাছে, যেখানে বিমান ভাড়া আনুমানিক ২০০০ থেকে ৩০০০ টাকার আশেপাশের থাকবে বলে জানাযাছে, যেখানে বালুরঘাট থেকে কোলকাতা পৌছতে সময় লাগবে মাত্র ৫০ মিনিট, এমনটাই জানাগেছে ভদ্রা এয়ারওয়েজের পক্ষ থেকে। সিভিল এ্যাভিয়েশন এর সঙ্গে যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে গেলেই ভদ্রা এয়ারওয়েজ এর বিমানকে মার্চ থেকেই উড়তে দেখা যাবে বালুরঘাট বিমানবন্দর থেকে। এতে দক্ষিণ দিনাজপুর, উত্তর দিনাজপুর ও মালদা জেলার মানুষের ব্যাপক সুবিধা হবে যেমন তেমন হিলি হয়ে যেসব যাত্রী বাংলাদেশ থেকে এই দেশে আসছে তাদেও অল্প সময়ে কলকাতা পৌছতে সুবিধা হবে। বালুরঘাট কলকাতা রুটে বিমান পরিষেবা লাভজনক হলে মনে করা হচ্ছে ভবিষ্যতে বালুরঘাট বিমানবন্দর থেকে উড়তে পারে দিল্লি চেন্নায় রুটের বিমান।

বালুরঘাট বিডিও উপর প্রাণঘাতী হামলার ভিডিও, অভিযুক্ত বিজেপি নেতা

12.12.2022, বালুরঘাট: ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে বিজেপির আনা আনাস্থা মুলতবি হতেই বালুরঘাটে বিডিও অফিসে এসে বিডিও অনুজ সিকদারের উপর প্রাণঘাতী হামলার অভিযোগ উঠলো বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। বিডিওকে তার ঘরেই চেয়ার ছুড়ে প্রাণে মারার চেষ্টা করে বিজেপি নেতা সুভাষ সরকার বলেই অভিযোগ৷ এই ঘটনায় আক্রান্ত বিডিওর মাথায় ও হাতে গুরুত্বর চোট লেগেছে বলে জানাযায়৷ বর্তমানে চিকিৎসাধীন আক্রান্ত বিডিও অনুজ সিকদার। এনিয়ে আইনি অভিযোগ দায়ের করতে চলেছে বিডিও। এদিকে বিডিও কে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছেন বালুরঘাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। রয়েছেন বালুরঘাট থানার আইসি শান্তিনাথ পাঁজা। ঘটনার ভিডিও সামনে আসতেই অভিযুক্ত বিজেপি নেতাকে সনাক্ত করে পুলিশ। নিচে ক্লিক করে ভিডিও দেখুন।