আইন হাতে তুলে নিয়ে জুয়ার ঠেকে ভাঙচুর উত্তেজিত জনতার

বালুরঘাট, ১৮ অক্টোবরঃ একাধিকবার প্রশাসনকে জানিয়েও কাজ না হওয়ায় জুয়ার ঠেক ভাঙলেন উত্তেজিত গ্রামবাসীরা। শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনা ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় কুমারগঞ্জের ডাঙ্গারহাট এলাকায়। ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে যায় কুমারগঞ্জ থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। ঘটনাস্থলে প্রচুর ফেনসিডিল ও মদের বোতল দেখে অবাক হয়ে যান পুলিশ কর্মীরাও। এদিকে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন উত্তেজিত বাসিন্দারা। পুলিশি আশ্বাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে।

কুমারগঞ্জের ডাঙ্গারহাট বাজার এলাকায় মৃদুল সিংহ রায়ের টিনের ঘেরা ছোট দোকানে দীর্ঘদিন ধরে চলছিল মটকা নামে ওই জুয়ার আসর। একই সাথে এলাকায় গজিয়ে ওঠা মদ ও ফেন্সিডিল কারবার রমরমিয়ে চলতে থাকে। এমন সব ঘটনা ঘিরে তিতিবিরক্ত হয়ে এলাকার বাসিন্দারা একাধিক বার পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েও কোন সুফল পাননি বলে অভিযোগ। ফলে বাধ্য হয়েই এদিন দুপুরে গ্রামের মহিলা পুরুষ একত্রিত হয়ে ভাঙচুর করে জুয়ার কারবারের দোকান ঘর। ঘটনা স্থলে পুলিশ পৌছালে পুলিশকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখান বাসিন্দারা। যদিও এই ঘটনা অস্বীকার করেছেন দোকান মালিক মৃদুল সিংহ রায়।
বিক্ষোভকারী মহিলা রুনু সরকার, দীপক অধিকারী, বিবেকানন্দ সরকাররা জানিয়েছেন, জুয়ার নেশায় খারাপ পথ বেঁছে নিচ্ছে এলাকার যুবকরা । একই সাথে মদ ও ফেন্সিডিল কারবার এলাকার পরিবেশ নষ্ট করছে। যার প্রতিবাদেই এদিন ভাঙচুর করেন উত্তেজিত বাসিন্দারা।
দোকান মালিকের ভাই অনুপ কুমার সিংহ রায় জানিয়েছেন, জুয়ার কারবারের ঘটনা সঠিক। এই বিষয়ে পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।
দোকান মালিক মৃদুল সিংহ রায় বলেন, চার মাসের জন্য তিনি তার দোকান ঘর এনামুলকে ভাড়া দিয়েছিলেন।
কুমারগঞ্জ থানার ওসি সঞ্জয় মুখার্জ্জী বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে এলাকায় পৌঁছে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে। ঘটনার তদন্ত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

খেলা