গঙ্গারামপুরে দুস্কৃতি হামলায় খুন হলেন দমদমা গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সভাপতি

২৮শে সেপ্টেম্বর, গঙ্গারামপুরঃ বালুরঘাটের উৎসব ভবনে দলীয় বৈঠক থেকে বাড়ি ফেরার পথে গঙ্গারামপুরে খুন হলেন দমদমা গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সভাপতি সন্তোষ দাস। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে কুপিয়ে খুন করা হয় বছর ষাটের সন্তোষ দাসকে। গতকাল রাতে কালদিঘি এলাকায় সন্তোষবাবুর ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয় একদল দুষ্কৃতী, এলোপাতাড়িভাবে কোপানো হয় সন্তোষবাবুর শরীরে। পরে স্থানীয়রা সন্তোষ বাবুকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। খুনের কারণ এখনো সামনে না এলেও, ঘটনার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। ঘটনায় দুই বিজেপি কর্মীকে আটক করেছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। তৃণমূল জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ আমাদের জানান গতকাল বালুরঘাটে উৎসব ভবনে জেলা সমস্ত পঞ্চায়েত সভাপতি প্রধান ও পঞ্চায়েত সমিতির নির্বাচিত প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি দলীয় মিটিং এ অংশগ্রহণ করতে বালুরঘাটে এসেছিলেন সন্তোষবাবু। বাড়ি ফেরার পথে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তার উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মৃত্যু হয়েছে সন্তোষবাবুর। ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবি জানান তৃণমূল জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ। এদিন সকালে মৃতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গঙ্গারামপুরে যান তিনি। শোকাহত পরিবারের পাশে দাঁড়াবার পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের আশ্বস্ত করেন দোষীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তি বিষয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

খেলা