কমিশনের নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে রোস্টার হলো বালুরঘাট পৌরসভার, আসন বাঁচাতে সমর্থন আরএসপির

২৬শে সেপ্টেম্বর, বালুরঘাটঃ নির্বাচন কমিশনের নিয়মকে পুরোপুরি বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে তৈরি হল বালুরঘাট পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনের রোস্টার। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুসারে বালুরঘাট পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে দুই নম্বর রোস্টার মেনে সংরক্ষণ বিধি করবার কথা থাকলেও সেই নিয়ম না মেনে জেলা প্রশাসন তৈরি করল এক অদ্ভুত রোস্টার, যেখানে না মানা হলো এক নম্বর না দুই নম্বর। বালুরঘাট পৌরসভার সঙ্গে চকভৃগুর চারটি মৌজা সংযুক্তি হবার পরে মধ্যবর্তী ডিলিমিটেশন করে রাজ্য নির্বাচন, এরপরে আরএসপি অভিযোগ করেছিল 2 এর বদলে এক নম্বর রোস্টার মেনে তৈরি হোক আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনের সংরক্ষণ আসন তালিকা। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুসারে জেলা প্রশাসন প্রথম খসড়া তালিকা তৈরি করে দুই নম্বর রোস্টার মেনেই। যেখানে সংরক্ষণের আওতায় আসে বামেদের বেশ কয়েকটি হেভিওয়েট নেতাদের আসন। আর তাতেই বেশ অন্তরায় হয়ে পড়ে আরএসপিও সিপিএমের রাজনৈতিক কৌশল।

এর পরবর্তী সংশোধিত সংরক্ষণ তালিকা জেলা প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের বিধি না মেনে এক প্রকার একনম্বর রোস্টার মেনেই তৈরি করে আসন সংরক্ষণ তালিকা। তপশিলি জাতি ও উপজাতি সংরক্ষণে নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী দুই নম্বর রোস্টার মানলেও মহিলা সংরক্ষণ রোস্টার তৈরি করতে মানা হলো এক নম্বর রোস্টার। কিন্তু কেন এই ধরনের নিয়ম বহির্ভূত কাজ করলো জেলা প্রশাসন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন?

সেখানে নির্বাচন কমিশন লিখিত নির্দেশ দিয়ে বলেছিল দুই নম্বর রোস্টার মেনেই প্রকাশ করতে হবে আসন সংরক্ষণ তালিকা। কিন্তু সেই নির্দেশ কেন মানা হলো না তা নিয়ে আঙ্গুল উঠছে জেলা প্রশাসনের দিকে। তবে কি কিছু প্রভাবশালী নেতাদের সুবিধা পাইয়ে দিতে এই ধরনের তালিকা প্রকাশ করল জেলা প্রশাসন। যদিও নির্বাচন কমিশন মাধ্যমে এখনো ফাইনাল সংরক্ষণ তালিকা প্রকাশিত হয়নি, প্রকাশ হবে আগামী 17 ই অক্টোবর। তবুও সর্বদলীয় বৈঠকে এই ধরনের ভুল রোস্টার সমর্থন পেল কিভাবে? তবে কি জেলা প্রশাসনের সঙ্গে যোগসাজশে তৈরি হলো এই ধরনের একটি নিয়মবহির্ভূত ভাবে তৈরি রোস্টার। এই সব কিছুতেই কাঠগোড়ায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

খেলা